• ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ , ১০ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

বরিশাল বিভাগে একের পর এক নারকীয় হত্যাকাণ্ড, এক সপ্তাহে ৮ হত্যা

বিডিক্রাইম
প্রকাশিত ফেব্রুয়ারি ৯, ২০২৪, ১৭:৫৯ অপরাহ্ণ
বরিশাল বিভাগে একের পর এক নারকীয় হত্যাকাণ্ড, এক সপ্তাহে ৮ হত্যা

মো: ফিরোজ গাজী:  গত ৮ থেকে ৯ দিনের ব্যবধানে বরিশাল বিভাগের বিভিন্ন জেলায় একের পর এক নারকীয় হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এ পর্যন্ত ৮ জনকে হত্যার খবর পাওয়া গেছে। এসব ঘটনার মধ্যে গলাকেটে, গলায় ওড়না পেচিয়ে, বিষ খাইয়ে ও হত্যা করে কচুড়িপানার মধ্যে লাশ ডুবিয়ে রাখার মত নৃশংস ঘটনাও ঘটানো হয়েছে।

এসব ঘটনায় আলোচিত জেলার মধ্যে পটুয়াখালী জেলা অন্যতম। এ জেলায় ৩জন, পিরোজপুর জেলায় ২ জন, বরগুনা জেলায় ২জন ও ভোলা জেলায় ১ জনসহ মোট ৮ জন নিহত হয়েছে। এ ছাড়াও বরিশাল নগরীর শেবামেক’র স্টাফ কোয়াটার থেকে এক নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

তবে মেয়েকে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবি করছিলেন অন্তরার বাবা। তবে ঐ নারী আত্মহত্যা করেছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। যতগুলো ঘটনা ঘটেছে এর মধ্যে আটঘর কুরিয়ানার ইউপি চেয়ারম্যান শেখর হত্যা সবচেয়ে আলোচিত ঘটনা।

এর বাইরে গলাচিপায় শ্যালকের হাতে দুলা ভাই হত্যা, আমতলীতে স্বামী ও শ্বশুড় কর্তৃক গৃহবধূকে হত্যা, মঠবাড়িয়ায় যুবককে হত্যা। এমনকি পটুয়াখালীতে আপন মা ও চাচা কর্তৃক নিজ সন্তান হত্যার মত জঘন্য ঘটনা ঘটেছে।

এদিকে কলাপাড়ায় বিয়ের একদিন পরে অর্থাৎ বাসর রাতের পরের দিন সকালে জামাইয়ের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এছাড়াও আমতলীতে অপহরণের দুই দিন পর ডোবা থেকে ঐ ছাত্রীর পুতে রাখা লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনার মূল রহস্য উদঘাটন করে গতকাল সংবাদ সম্মেলন করেছে পুলিশ।

পুলিশ এও জানিয়েছে যে, তাকে ধর্ষণও করা হয়েছে। এর আগের দিন কচুড়িপানায় মধ্যে তার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এদিকে ভোলার চরফ্যাসনে বিষ খাইয়ে এক গৃহবধূকে হত্যা করে হাসপাতালে লাশ ফেলে পালিয়েছে তার স্বামী-শ্বশুড় বাড়ির লোক জন। সব মিলিয়ে সাম্প্রতিক সময়ে অন্যন্যা সময়ের চেয়ে বেশি হত্যার ঘটনা ঘটছে।

এতে ঐসব এলাকার মানুষের মধ্যে আতঙ্ক বাড়ছে। এসব ঘটনার পরপরই পুলিশ ও র‌্যাব অভিযান চালিয়ে ইউপি চেয়ারম্যান হত্যায় বর্তমান চেয়ারম্যান মিঠুন হালদার সহ বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করে।

তবে বরিশাল জেলার আইনশৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে জানিয়ে পুলিশ সুপার ওয়াহিদুল ইসলাম বলেন, বরিশাল জেলার মধ্যে এমন কোনো হত্যাকাণ্ডের ঘটনা নেই। শেবাচিম কোয়ার্টার থেকে নারীর লাশ উদ্ধারের ঘটনায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

পটুয়াখালী:
এ জেলার মধ্যে আলোচিত জমিজমা নিয়ে বিরোধীয় প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে পটুয়াখালী দশমিনা উপজেলার বেতাগী সানকিপুর ইউনিয়নে মরিয়ম (৮) নামের এক শিশু হত্যা করেছে তার আপন মা আর চাচা, এমনটাই জানিয়েছে পুলিশ। এ ঘটনায় মা ও অভিযুক্ত চাচাকেও গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

এদিকে পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় বিয়ের একদিন পরেই এক যুবককে গলাকেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারী) সকাল দশটার দিকে উপজেলার ৭নং লতাচাপলী ইউনিয়নের তাহেরপুর গ্রামের একটি মরিচ ক্ষেতের মধ্যে থেকে ওমর আলী নামের ঐ ব্যক্তির মরদেহটি উদ্ধার করা করে পুলিশ।

এছাড়া পটুয়াখালী জেলার গলাচিপায় শ্যালকের লাঠির আঘাতে দুলাভাই জহিরুল আলম নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় শ্যালক তরিকুল ইসলামকে (২৪) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বুধবার (৩১ জানুয়ারি) রাতে উপজেলার কলাগাছিয়া ইউনিয়নের কুমারখালী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

পিরোজপুর:
এ জেলার মধ্যে আলোচিত পিরোজপুরের নেছারাবাদ উপজেলার আটঘর কুড়িয়ানা ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান মিঠুন হালদারের হামলায় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান শেখর সিকদার নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় পুলিশ ৮ জনকে গ্রেপ্তার করেছে।

এছাড়া মঠবাড়িয়ায় উপজেলার বেতমোর ইউনিয়নের রাজপাড়া গ্রামে জমিসংক্রান্ত বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় উজ্জ্বল অধিকারী নামের এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে স্থানীয় বাসিন্দা ননী গোপাল অধিকারী ও তার ছেলে নিরব অধিকারীকে আটক করেছে পুলিশ।

বরগুনা:
এ জেলার মধ্যে আলোচিত তালতলী উপজেলার চরপাড়া (নকরি) গ্রামেসুখী আক্তার (১৯) নামের এক গৃহবধুকে হত্যা করেছে তার স্বামী, শ্বশুর, শাশুড়ী ও দেবর। নিখোঁজের দুইদিন পরে ঐ গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় অভিযুক্ত ৪ জনকেই গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

এছাড়া মুক্তিপণ না পেয়ে অপহরণের দুই দিন পরে আমতলী উপজেলার পুজাখোলা গ্রামের খালের চরে হোগলপাতার এলাকার মাদ্রাসা ছাত্রীকে হত্যা করা হয়েছে। এমনকি তাকে ধর্ষণও করা হয়েছে বলে গতকাল পুলিশ জানিয়েছে। এর আগের দিন কচুড়িপানায় মধ্যে তার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

ভোলা:
ভোলা জেলার চরফ্যাসনে আসমা বেগম (২৬) নামের এক গৃহবধূকে মারধরের পর মুখে বিষ ঢেলে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামীসহ তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে। চরফ্যাসন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই গৃহবধূ মারা গেলে স্ত্রী মরদেহ হাসপাতালে রেখে পালিয়ে যান স্বামী আজাদ মাঝি।

বরিশাল:
বরিশাল শের ই বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় (শেবাচিম) হাসপাতালের তৃতীয় শ্রেণির কোয়ার্টার থেকে আইএইচটির শিক্ষার্থী অন্তরার (২২) ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে এটা আত্মহত্যা বলে পুলিশ জানিয়েছে। যে কারণে কোতয়ালী মডেল থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।