• ২৩শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১৪ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

হত্যার ঘটনায় ৬৫ জনকে আসামী করে মামলা

বিডিক্রাইম
প্রকাশিত এপ্রিল ১২, ২০২৪, ১৪:৪৪ অপরাহ্ণ
হত্যার ঘটনায় ৬৫ জনকে আসামী করে মামলা

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি : আমতলীতে চাঞ্চল্যকর হিরন গাজী হত্যাকান্ডের ঘটনায় ৬৫ জনকে আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় ১৬ জনের নাম উল্লেখ করে ৪০- ৫০জনকে অজ্ঞাত আসামী করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন নিহত হিরন গাজীর স্ত্রী তাছলিমা বেগম। মামলার এজাহার ভূক্ত প্রধান আসামী চেয়ারম্যান প্রার্থী আবুল বাশার নয়ন মৃধাসহ ৫ জনকে গ্রেপ্তার করে শুক্রবার সকালে জেল হাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ। মামলা সূত্রে জানা গেছে, আমতলী সদর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদের প্রতিদ্বন্দী প্রার্থী অটোরিকসা প্রতিকের আবুল বাশার নয়ন মৃধা তার বড় ভাই এজেডএম সালেহ পাননু মৃধা, আরপাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ মো. জাহাঙ্গীর সর্দার, মো. সবুজ মিয়া, মাঈনুদ্দিন সর্দার, কাদের সর্দার, ইউসুব মাদবর, ইব্রাহিম মাদবর, মো. আবু তালেব গাজী, হিরন মোল্লা, পলাশ হাওলাদার, মো, হান্নান গাজী., মো. কবির হাওলাদার, কবির সর্দার ও মো. শহিদ মলাকারের নেতৃত্বে ৫০-৬৫ জন কর্মী সমর্থক নিয়ে বুধবার রাত সাড়ে ১১ টার সময় পূর্ব মহিষডাঙ্গা গ্রামে ভোটারদের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে টাকা দিচ্ছেন।

এ খবর পেয়ে ওই গ্রামের বাসিন্দা ঘোড়া প্রতিকের চেয়ারম্যান প্রার্থী মোতাহার উদ্দিন মৃধার কর্মী হিরন গাজী ১০-১২ জন কর্মী সমর্থক নিয়ে বাঁধা দেন। এতে ক্ষিপ্ত হন আবুল বাশার নয়ন মৃধা। এসময় বাকবিগন্ডার এক পয়ায়ে আসামী ইসুব মাদবর ও আবু তালেব গাজী নিহত হিরন গাজী দুই হাত ধরে রাখে এবং ১নং আসামী আবুল বাশার নয়ন মৃধা তার হাতে থাকা একটি চায়নার ধারালো চাকু হিরন গাজীকে হত্যার উদ্দেশ্যে বুকের বাম পাশে এবং ২নং আসামী এজেডএম সালেহ পাননু মৃধা হিরন গাজীর বাম বোগলের উপরে ও ৩নং আসামী আবুল কালাম আজাদ নিহত হিরন গাজীর বাম কোকের উপরে ধারালো ডেগার দিয়ে আঘাত করে হত্যা করে। এহত্যা কান্ডের ঘটনায় শুক্রবার দুপুরে নিহতের স্ত্রী তাছলিমা বেগম বাদী হয়ে অটোরিকসা প্রতিকের চেয়ারম্যান প্রার্থী আবুল বাশার নয়ন মৃধাকে প্রধান আসামী করেন।

এবং আরো ১৫ জনের নাম উল্লেখ করে ৫০-৬০ জনকে অজ্ঞাত আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার পর বৃহস্পতিবার রাতে পুলিশ মামলার প্রধান আসামী আবুল বাশার নয়ন মৃধা এবং সন্দেহ ভাজন সোহাগ প্যাদা, মাহবুব, গোলাম কিবরিয়া ও মেহেদি নামে ৫ জনকে গ্রেপ্তার করে শুক্রবার সকালে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করে। নিহত হিরন গাজীর স্ত্রী তাসলিমা বেগম বলেন, মোর স্বামীরে আবুল বাশার নয়ন মৃধা তার ভাই এজেড এম ছালেহ পাননু মৃধা ও আবুল কালাম আজাদের নেতৃত্বে খুন করেছে। আমি এই খুনের কঠিন বিচার চাই। আমতলী থানার ওসি কাজী সাখাওয়াত হোসেন তপু বলেন, হিরন গাজী হত্যা কান্ডের ঘটনায় ১৬ জনের নাম উল্লেখ এবং ৫০-৬০ জনকে অজ্ঞাত আসামী তার স্ত্রী বৃহস্পতিবার দুপুরে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। এ মামলায় প্রধান আসামী আবুল বাশার নয়ন মৃধাসহ ৫জনকে গ্রেপ্তার করে শুক্রবার সকালে আদালতের মাধ্যমে শুক্রবার সকালে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। অন্য আসামীদের গ্রেপ্তারের জোর চেষ্টা চলছে।