• ৯ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ২৬শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২৬শে রমজান, ১৪৪২ হিজরি

লকডাউনে বরিশালের বাজার অস্থির

বিডিক্রাইম
প্রকাশিত এপ্রিল ১৮, ২০২১, ১৬:৫৯ অপরাহ্ণ
লকডাউনে বরিশালের বাজার অস্থির

মজিবর রহমান নাহিদ ॥ গত সপ্তাহের তুলনায় বরিশালের বাজারে কয়েকদফা বেড়েছে নিত্যপ্রয়োজনীয় প্রণ্যের দাম।

অন্যান্য পণ্যের দাম কিছুটা বাড়লেও কয়েকগুণ বেড়েছে সবজির দাম। লকডাউন শুরু হওয়ার সাথে সাথেই অস্থির হয়ে উঠে বরিশালের প্রতিটি বাজার।

আর বাজারের পণ্যের দাম বাড়ায় চিন্তিত হয়ে পড়ছেন মধ্যবিত্ত ও নি¤œ আয়ের মানুষেরা।

নগরীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা যায়, গত সপ্তাহের চেয়ে বরিশালের বাজারগুলোতে চাল, চিনি, ভোজ্যতেল, পেঁয়াজ, আদা-রসুন, গরুর মাংস ও খেজুরের দাম বাড়ানো হয়েছে।

নগরীর বাজার রোড, পোর্ট রোড সহ অধিকাংশ কাঁচা বাজারের শসা ও বেগুন বিক্রি হচ্ছে ৮০ থেকে ১০০ টাকা কেজি দরে।

দুই সপ্তাহ আগেও শসা ও বেগুনের দাম ছিলো ৪০ থেকে ৫০টাকা। এছাড়া বেড়েছে কাঁচা মরিচ ও শুকনো মরিচের দাম।

কাঁচামরিচ বিক্রি হচ্ছে ৭০-৮০ টাকা যা কয়েকদিন আগে ছিলো ৫০ টাকা কেজি। পটোল, ঝিঙে, ঢেঁড়স, ধুন্দুলের মতো সবজিও বিক্রি হচ্ছে ৬৫-৮০ টাকা। টমেটো বিক্রি হচ্ছে ৩৫ থেকে ৪০ টা যা আগে ছিলো ২৫ থেকে ৩০টাকা।

বরিশালের বাজার ৩৮ টাকা কেজি দেশি পেঁয়াজের দাম কেজিতে ৩-৪ টাকা বেড়ে হয়েছে ৪০ টাকা। আর বোতলজাত ৫ লিটার ৬২০ টাকার সয়াবিনের দাম বাড়তে বাড়তে হয়েছে ৬৬০ টাকা।

এছাড়া দাম বেড়েছে আলু,আদা, রসুন ও চিনিরি। ৮০ টাকার দেশি রসুন বিক্রি হচ্ছে ১শ’ টাকা, ১শ’ টাকার বিদেশী রসুন ১২০ টাকা, আদা ১২০ টাকা, চিনি ৭০ টাকা।

অন্যদিকে গত সপ্তাহের চেয়ে কেজিকে ১০ থেকে ১৫ টাকা বেশি মূল্যে বিক্রি হচ্ছে বয়লার মুরগী। ৫৫০ টাকা কেজির গরুর মাংসা বিক্রি হচ্ছে ৫৮০টাকা। খাসির মাংস বিক্রি হচ্ছে ৮৫০-৯০০ টাকা কেজিতে।

বাজার রোড কথা হয় অবসারপ্রাপ্ত সরকারী কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম সাথে, তিনি বলেন, লকডাউনের অযুহাতে প্রায় প্রতিটি পণ্যের দাম বেড়েছে। এভাবে যদি প্রতিটি পণ্যের দাম বাড়তে থাকে তাহলে আমাদের মতো মধ্যবিত্ত পরিবারের মানুষের জন্য খুব কষ্ট হয়ে যাবে। সরকারের প্রতি অনুরোধ যাতে সুষ্ঠ মনিটরিং এর মাধ্যমে বাজার দর নিয়ন্ত্রণে রাখেন।