যৌতুকের দাবীতে বানারীপাড়ায় নির্মম নির্যাতনের শিকার উজিরপুরের অসহায় নারী

৮:৩৬ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ১৭, ২০২০ প্রতিদিনের বরিশাল, বরিশাল, বরিশাল বিভাগ, শিরোনাম

উজিরপুর প্রতিনিধি ॥

যৌতুকের দাবীতে বানারীপাড়ায় শ্বশুর-শাশুড়ি,ননদ কর্তৃক নির্মম নির্যাতনের শিকার উজিরপুরের এক নারী। অসহায় নারীকে বহুদিন ধরে অমানুষিক নির্যাতন চালিয়ে মানসিক ভারসাম্যহীন অবস্থা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। নির্যাতিতা ও পরিবার সূত্রে জানা যায় উপজেলার বামরাইল ইউনিয়নের খোলনা গ্রামের মৃত সেকান্দার আলি সরদারের মেয়ে ইয়াসমিন বেগম(৩০) এর ১৭ বছর পূর্বে পার্শ্ববর্তী বানারীপাড়া উপজেলার বাকপুর গ্রামের মুজিবর রহমান সরদারের ছেলে সবুজ সরদার(৪০) এর সাথে সামাজিক ভাবে বিবাহ হয়।

তাদের দাম্পত্য জীবনে সাব্বির সরদার(১৪) ৯ম শ্রেণীর ছাত্র,আকাস সরদার(১০) ২য় শ্রেণীর ছাত্র নামের ২ টি সন্তান রয়েছে। বিবাহের পর থেকেই যৌতুকের দাবীতে শ্বশুর-শাশুড়ি,ননদ মিলে ইয়াসমিনের উপর প্রায়ই অমানবিক ভাবে শারিরিক নির্যাতান চালাত । এরপর কোন উপায়ন্তু না পেয়ে ইয়াসমিনের পরিবার নগদ ১ লক্ষ টাকা যৌতুক দেয়। তারপরেও ক্ষান্ত হয়নি যৌতুকলোভীরা। এরই ধারাবাহিকতায় পুনরায় ২৬ অক্টোবর সকাল ১০ টায় ইয়াসমিনের শশুর মুজিবর রহমান সরদার(৬৫), শাশুড়ি রেবা বেগম(৫০) ও ননদ ফাতেমা বেগম(২০),ঝুমুর বেগম(১৯) মিলেআরো ১ লক্ষ টাকা যৌতুক দাবী করে।

যৌতুকের টাকা দিতে রাজী না হওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে তারা সকলে মিলে বসত ঘরের সামনে রাস্তার উপরে ফেলে প্রকাশ্যে এলোপাতাড়ি ভাবে পিটিয়ে সঙ্গাহীন করে ফেলেছে। খবর পেয়ে নির্যাতিতার বোন পারভীন বেগম ও বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী স্বামী সবুজ সরদার মিলে তাকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে উজিরপুর স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করে। মাথায় গুরুতর আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে হাসপাতালের বিছানায় আবল তাবল বকছে নির্যাতিতা ইয়াসমিন। মায়ের পাশে ২ ছেলে আকুতি করছে বিচারের দাবীতে। পাষন্ডদের হাত থেকে অবুঝ শিশু আকাশও রেহাই পায়নি।

এদিকে স্বামী বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী হওয়ায় প্রতিবাদ করার সুযোগ নেই তার। অভিযুক্তদের মোবাইল ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। ওই যৌতুকলোভীদের গ্রেফতার পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানিয়ে প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সু-দৃষ্টি কামনা করেন অসহায় নির্যাতিতা পরিবার।