• বরিশাল, আজ মঙ্গলবার, ২৪শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ৮ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি

মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান : বরিশালে ২২ জনকে কারাদণ্ড

৯:০৯ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ২২, ২০২০ প্রতিদিনের বরিশাল, বরিশাল, বরিশাল বিভাগ, শিরোনাম

বিডি ক্রাইম ডেস্ক ::

বরিশালে গত সপ্তাহের বুধবার (১৪ অক্টোবর) থেকে শুরু হওয়া প্রজননক্ষম (মা) ইলিশ সংরক্ষণ অভিযানে সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ২৫টি মামলায় ২২ জন জেলেকে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এসময় তিনজন জেলের কাছ থেকে ১৩ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

এছাড়াও জেলেদের কাছ থেকে প্রায় এক লাখ ৫০ হাজার মিটার কারেন্টজাল জব্দ করে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়।

এদিকে গত ১৪ অক্টোবর থেকে এ পর্যন্ত মোট ৫২টি অভিযানে ১৭৬ টি মামলা করা হয়েছে। যেখানে জরিমানাকৃত ব্যক্তির সংখ্যা ২৯ জন এবং কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে ১৪৭ জনকে। এছাড়া সর্বমোট ১ লাখ ৬২ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। প্রায় ১৩ লক্ষ মিটার কারেন্ট জাল জব্দ করে তা পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার (২২ অক্টোবর) সন্ধ্যায় বরিশাল জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এসব তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করা হয়েছে।

জানা গেছে, ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুমে মা ইলিশ রক্ষায় জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমানের নির্দেশনায় ২৪ ঘণ্টায় জেলায় ছয়টি মোবাইল কোর্ট অভিযান পরিচালনা করেন বিভিন্ন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা।

জেলা প্রশাসন বরিশালের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট জিয়াউর রহমান এর নেতৃত্বে বৃহস্পতিবার বিকাল ৪ টা থেকে সন্ধ্যা ৭ টা পর্যন্ত বরিশালের বিভিন্ন নদীর পৃথক পৃথক স্থানে প্রজননক্ষম ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান- ২০২০ উপলক্ষে মোবাইল কোর্ট অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযানকালে ইলিশ মাছ আহরণের সময় নৌ-পুলিশের সহায়তায় ২ জেলেকে আটক করা হয়। পরবর্তীতে সরকারী নির্দেশনা অমান্য করে ইলিশ মাছ আহরণের দায়ে আটককৃত ২ জেলেকে ১ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। পাশাপাশি প্রায় ৫০০০০ মিটার জাল জব্দ ও পুড়িয়ে বিনষ্ট করা হয়। জব্দকৃত ইলিশ মাছ স্থানীয় মাদ্রাসায় ও দুঃস্থ মানুষের মাঝে বিতরণ করা হয়।

উক্ত অভিযানে প্রসিকিউশন অফিসার হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মৎস্য অফিসার( ইলিশ) বিমল চন্দ্র দাস। এছাড়া কীর্তনখোলা নদীতে পৃথক পৃথক স্থানে পরিচালিত এই অভিযানসমূহে আইন-শৃংখলা রক্ষায় নৌ-পুলিশ ও কোস্ট গার্ড বরিশাল সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করে।

হিজলা উপজেলার নির্বাহী অফিসার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট বকুল চন্দ্র কবিরাজ এর নেতৃত্বে প্রজননক্ষম ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান- ২০২০ উপলক্ষে হিজলা উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় মোবাইল কোর্ট অভিযান পরিচালিত হয়। মৎস্য সম্পদ রক্ষায় সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে মাছ ধরার অপরাধে হিজলা উপজেলার বিভিন্ন নদীতে গতকাল পৃথক পৃথক স্থানে অভিযান পরিচালনা করে ১০ জন জেলেকে আটক করা হয়। পরবর্তীতে আটককৃত ১০ জেলেকে ১ বছরের কারাদ- প্রদান করা হয়। অধিকন্তু প্রায় ৫০০০০ মিটার জাল জব্দ ও পুড়িয়ে বিনষ্ট করা হয়।

মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলায় মৎস্য সম্পদ রক্ষায় সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে মাছ ধরার অপরাধে মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন নদীতে বৃহস্পতিবার পৃথক পৃথক অভিযান পরিচালনা করে ৯ জেলেকে আটক করা হয়। পরবর্তীতে আটককৃত ৮ জনকে জেলেকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদ- এবং ১ জনকে ৫০০০ টাকা অর্থদ- প্রদান করা হয়। অভিযানে প্রায় ১১০০০ মিটার জাল ও প্রায় ২৪ কেজি পরিমাণ ইলিশ মাছ জব্দ করা হয়। জাল পুড়িয়ে বিনষ্ট করা হয়। মাছ স্থানীয় এতিমখানা, মাদ্রাসা ও স্থানীয় দুস্থদের মাঝে বিলিয়ে দেয়া হয়।

মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট পিজুস চন্দ্র দে পরিচালিত মোবাইল কোর্ট অভিযানে প্রসিকিউশন অফিসার হিসেবে উপস্থিত থেকে সহায়তা প্রদান করেন উপজেলা মৎস্য অফিসার ভিক্টর বাইন। মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন নদীতে পৃথক পৃথক স্থানে পরিচালিত এই আভিযানসমূহে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় সার্বিক সহায়তা প্রদান করেন মেহেন্দিগঞ্জ থানা পুলিশ, কাজিরহাট থানা পুলিশ ও কালীগঞ্জ নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির চৌকস পুলিশ দল।

বানারীপাড়া উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মফিজুর রহমান এর নেতৃত্বে প্রজননক্ষম ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান- ২০২০ উপলক্ষে পরিচালিত মোবাইল কোর্ট অভিযানকালে সরকারী নির্দেশ অমান্য করে ইলিশ মাছ আহরণের সময় ৪ জন জেলেকে বানারীপাড়া থানা পুলিশ এর সহায়তায় আটক করা হয়। পরবর্তীতে আটককৃত ২ জেলেকে ১ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং ২ জনকে ৮০০০ টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়। পাশাপাশি ১০০০ মিটার জাল জব্দ ও পুড়িয়ে বিনষ্ট করা হয়।
বাবুগঞ্জ উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট নুসরাত জাহান খান এর নেতৃত্বে প্রজননক্ষম ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান- ২০২০ উপলক্ষে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় পরিচালিত মোবাইল কোর্ট অভিযানকালে ৩০০০০ মিটার জাল জব্দ ও পুড়িয়ে বিনষ্ট করা হয়। জব্দকৃত মাছ স্থানীয় এতিমখানা ও দুঃস্থদের মাঝে বিতরণ করা হয়।

উজিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট প্রণতি বিশ্বাসের নেতৃত্বে প্রজননক্ষম ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান- ২০২০ উপলক্ষে উজিরপুর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় মোবাইল কোর্ট অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযানকালে প্রায় ১২০০০ মিটার জাল জব্দ ও পুড়িয়ে বিনষ্ট করা হয়েছে।