• ৯ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ২৬শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২৬শে রমজান, ১৪৪২ হিজরি

মঠবাড়িয়ায় কলেজ ছাত্রী ধর্ষণ মামলার আসামীদের স্বজনদের বিরুদ্ধে মিথ্যা ভিডিও ছড়ানোর প্রতিবাদে মানববন্ধন

বিডিক্রাইম
প্রকাশিত মে ৪, ২০২১, ১৫:২৪ অপরাহ্ণ
মঠবাড়িয়ায় কলেজ ছাত্রী ধর্ষণ মামলার আসামীদের স্বজনদের বিরুদ্ধে মিথ্যা ভিডিও ছড়ানোর প্রতিবাদে মানববন্ধন

মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি ॥ পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় সংঘবদ্ধ বখাটে কর্তৃক এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ ঘটনায় অভিযুক্ত আসামীদের স্বজনরা মিলে ভূক্তভোগি কলেজ ছাত্রীকে আটকে ভয়ভীতি দেখিয়ে প্রতিষ্ঠান প্রধানের বিরুদ্ধে মিথ্যা স্বীকারোক্তিমূলক একটি ভিডিও ধারন করে সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে অপপ্রচারের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসি।

মঙ্গলবার স্থানীয় মিরুখালীস্কুল এন্ড কলেজের এর উদ্যোগে ইউনিয়ন বাজারের প্রধান সড়কে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ সহস্রাধিক এলাকাবাসি অংশ নেন।

স্থানীয় দাউদখালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি বজলুর রহমান খান এর সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য দেন, অধ্যক্ষ আলমগীর হোসেন খান, মাদ্রাসা সুপার এবিএম রুহুল আমীন, আওয়ামীলীগ নেতা মো. ইলিয়াস মিয়া, মজিবর রহমান, যুবলীগ নেতা লাভলু তালুকদার, প্রধান শিক্ষক কামাল হোসেন, শিক্ষক আবদুর রব, সাকিল আহম্মেদ, সমাজ সেবক গোলাম মোস্তফা, শিক্ষক পারভেজ তালুকদার ও ছাত্রলীগ নেতা শাহীন তালুকদার প্রমূখ।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে মিরুখালী স্কুল এন্ড কলেজের নবম শ্রেণীপড়ুয়া এক ছাত্রীকে সাইফুল ইসলাম নামে এক বখাটের নেতৃত্বে চার যুবক মিলে মেয়েটিকে পথ থেকে তুলে নিয়ে পরিত্যাক্ত একটি ঘরে আটকে জোর পূর্বক পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

এ ঘটনায় বিচার দাবিতে নির্যাতিত মেয়েটির মা বাদি হয়ে অভিযুক্ত চার ধর্ষকের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। অভিযুক্ত আসামীরা বর্তমানে কারাগারে আছে। এ ধর্ষণ ঘটনার প্রতিবাদে কলেজ অধ্যক্ষের নেতৃত্বে প্রতিষ্ঠানের শিক্ষ-শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসি নানা প্রতিবাদকর্মসূচি পালন করে।

এতে অভিযুক্ত আসামীদেও পরিবার ও স্বজনরা কলেজ অধ্যক্ষকে হেনস্থা করতে সম্প্রতি নির্যাতিত মেয়েটিকে দ্বিতীয় দফায় তুলে নিয়ে আটকে মেয়েটির ওপর শারিরীক নির্যাতন ও ভয়ভীতি দেখিয়ে কলেজ অথ্যক্ষের বিরুদ্ধে
আপত্তিকর বানোয়াট স্বীকারোক্তি ধারন করে।

পরে ওই ভিডিও আসামীদের স্বজনরা সামাজিক যোগযোগ মাধ্যমে আপলোলোড করে অপপ্রচার চালায়।