• ৪ঠা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৯শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ১৯শে রজব, ১৪৪২ হিজরি

শিরোনাম
রাজাপুরে মাদক সেবনে বাঁধা দেওয়ায় স্বামী ও স্ত্রীকে কুপিয়ে জখম রাজাপুরে সরকারি অফিসে তালা! অধিনস্থদের নিয়ে কর্মকর্তা কুয়াকাটায় ভ্রমনে কলাপাড়ায় পুকুরে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু খাদ্যে বিষক্রিয়ায় পায়রা বন্দরের ৫ নির্মান শ্রমিক অসুস্থ্য, হাসপাতালে ভর্তি উজিরপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে এ্যাডভোকেসি সভা অনুষ্ঠিত উজিরপুরে ভোটকেন্দ্র বহাল রাখার দাবীতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন বরগুনায় জাতীয় পতাকা অবমাননা শীর্ষ তিন সরকারি কর্মকর্তা বিরুদ্ধে মামলা ভোলায় যেভাবে ধর্ষণ করা হয় শিশুটিকে সাংবাদিক মোজাক্কির হত্যার বিচারের দাবিতে বরিশালে মানববন্ধন বরিশালে ২৮ জেলেকে এক বছর করে কারাদন্ড

ভোলায় জুয়া বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনী ও সচেতনতা সভা অনুষ্ঠিত

বিডিক্রাইম
প্রকাশিত জানুয়ারি ২৬, ২০২১, ১৯:৪০ অপরাহ্ণ
ভোলায় জুয়া বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনী ও সচেতনতা সভা অনুষ্ঠিত

আকতারুল ইসলাম আকাশ,ভোলা ॥ ভোলা সদর উপজেলার পূর্ব ইলিশা বেড়িবাঁধ এলাকায় জেলে পল্লীতে ক্রিকেট অনলাইন জুয়া, বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে সচেতনতায় প্রামান্যচিত্র প্রদর্শনী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ইলিশা সমাজ কল্যাণ স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের আয়োজনে ও কোস্ট ট্রাস্ট ইউনিসেফ এবং মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সহযোগীতায় মঙ্গলবার বিকেলে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, ভোলা সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পূর্ব ইলিশা ইউপি চেয়ারম্যান হাছনাইন আহমেদ হাছান মিয়া।

ভোলা সদর মডেল থানার ওসি তদন্ত আরমান হোসেন, ইলিশা নৌ-থানা ওসি সুজন পাল, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি হোসেন মিয়া, বিশিষ্ট সমাজ সেবক বাবুল মিয়া, কোস্ট ট্রাস্ট এর কর্মকতা মোঃ ইউনুস, সমাজসেবা কর্মকতা মোস্তাফিজুর রহমান মিশুক।

সংগঠনের সমন্বয়কারী ইয়ামিন হোসেন এর সঞ্চালনায় মোঃ কবির মালের সভাপতিত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন, ইলিশা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের উপ-পরিদর্শক ফরিদ উদ্দিন, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ এর সহ-সভাপতি ছাইদ আলী জমাদার,কৃষি কর্মকতা মঞ্জুর মিয়াজী, কবির ফরাজী,মোশারেফ হাওলাদার প্রমুখ।

সভায় বক্তারা বাল্য বিয়ের কুফল তুলে ধরে বলেন, বাল্য বিবাহ আমাদের দেশের দীর্ঘ দিনের একটি সামাজিক অভিশাপ। বাল্য বিবাহের অভিশাপে একজন নারীকে পরিপূর্ণ মানুষ হিসেবে বিকশিত হতে দেয় না। একটি সুস্থ জাতি পেতে হলে দরকার একজন শিক্ষিত মা।

শিক্ষিত মায়ের দ্বারাই সম্ভব একটি সুস্থ জাতি এবং একটি সুস্থ সুন্দর প্রজন্ম গড়ে তোলা। কিন্তু বাল্য বিবাহের কারণে আমাদের এই সমাজের বেশির ভাগ মেয়ে শিক্ষা থেকে বঞ্চিত।

আগামী প্রজন্মও সুস্থ ভাবে বেড়ে উঠা ও সুনাগরিক হিসেবে গড়ে উঠতেও বাল্য বিবাহ বড় একটি বাধা।

 

আমাদের জীবনে আধুনিকতা ও উন্নয়নের ছোঁয়া লাগলেও বাল্য বিবাহের প্রবনতা কমেনি। বাল্য বিবাহ বন্ধে কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা থাকলেও সমাজের সাধারণ মানুষের জনসচেতনতা না থাকার কারণে এর কার্যকরতা তেমন বৃদ্ধি পাচ্ছে না।

বাল্যবিয়ে, অনলাইন ও ক্রিকেট জুয়া বন্ধে সকলকে একসাথে এগিয়ে আসতে হবে। তৃনমূল পর্যায় থেকে সকলে সচেতন হলেই বাল্যবিয়ে রোধ করা সম্ভব হবে।