• ২৭শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১২ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১৬ই জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

ব্রিজের চুরি করা মালামাল উদ্ধার, ৩ দিনেও হয়নি মামলা

বিডিক্রাইম
প্রকাশিত জুলাই ১৬, ২০২১, ১৪:১৬ অপরাহ্ণ
ব্রিজের চুরি করা মালামাল উদ্ধার, ৩ দিনেও হয়নি মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঝালকাঠির রাজাপুরের একটি আয়রণ ব্রিজের পুরাতন লোহার মালামাল চুরি করে বরিশালে পাচারকালে নলছিটির আমিরাবাদ এলাকা থেকে উদ্ধার হয়েছে।

গত মঙ্গলবার রাতে মালামালগুলো নলছিটি থানা পুলিশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ। এমনকি ৩ দিন পেরিয়ে গেলেও মামলা হয়নি থানায়।

পুলিশের দাবি, মালামালগুলো পরিত্যক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। ঘটনাস্থলে কাউকে পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় কেউ মামলা না করায় মালামালগুলো জব্দ দেখিয়ে আদালতকে জানানো হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, রাজাপুরের গালুয়া ইউনিয়নের একটি ব্রিজের পুরাতন লোহার মালামাল চুরি করে গত মঙ্গলবার দুপুরে কয়েকজন লোক পিকআপযোগে বরিশাল নগরীতে বিক্রির উদ্দেশ্যে নিয়ে যাচ্ছিল।

ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমে জানাজানি হওয়ায় খুলনা-বরিশাল মহাসড়কের নলছিটি উপজেলা আমিরাবাদ এলাকায় স্থানীয়রা পিকআপটি আটকে দেয়।

স্থানীয়দের জিজ্ঞাসাবাদে পিকআপে থাকা লোকজন জানায়, ‘মালামালগুলো রাজাপুরের গালুয়া এলাকার একটি ব্রিজের। ব্রিজের ঠিকাদার কবির ভাই।

মেরামত ও রং করানোর জন্য মালামালগুলো বরিশালের ভাই ভাই স্টোরে নেয়া হচ্ছে।’ কথাবার্তা সন্দেহজনক মনে হলে স্থানীয়রা তাদেরকে চ্যালেঞ্জ করে।

পরিস্থিতি বেগতিক দেখে পিকআপটি দ্রুত সামনে টেনে চুরি করা মালামালগুলো রাস্তার পাশে ফেলে পিকআপ নিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায় চালক। পরে পুলিশ মালামালগুলে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

মালামালগুলো উদ্ধারকারী নলছিটি থানার এস.আই আজিজুর রহমান জানান, পরিত্যক্ত অবস্থায় মালামালগুলো উদ্ধারের ঘটনায় ওইদিন রাতেই নলছিটি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে।

জব্দকৃত ওই মালামালের ব্যাপারে আদালতকে জানানো হয়েছে।

নলছিটি থানার পরিদর্শক এইচ.এম মাহমুদ জানান, মালামালগুলো পরিত্যক্ত অবস্থায় পাওয়ায় ঘটনাস্থল থেকে আটক করা যায়নি।

উদ্ধার করা মালামাল এখন পুলিশ হেফাজতে আছে। তবে কেউ বাদি না হওয়ায় এখনও মামলা হয়নি।