• ১৯শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৩রা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১২ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

বোরহানউদ্দিনে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত-৬

বিডিক্রাইম
প্রকাশিত অক্টোবর ৯, ২০২১, ১৭:২৫ অপরাহ্ণ
বোরহানউদ্দিনে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত-৬

বোরহানউদ্দিন (ভোলা) প্রতিনিধিঃ জমি সংক্রান্ত বিচার চলাকালীন শালীশদের উপস্থিতিতে প্রতিপক্ষের হামলায় ছয় জন আহত হয়েছে।

ভোলা বোরহানউদ্দিন নুরমিয়ার হাট বাজারে শুক্রবার রাতে এ হামলার ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন, রফিজল হক (৮০), মোঃ জাকির হোসেন, মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান (৪০), মোঃ বেল্লাল হোসেন (৪০), মোঃ মনির হোসেন (৩৫) ও মোঃ হাসনাইন (৩৫)।

আহতরা পুলিশ কে জানানোর পর বোরহানউদ্দিন থানা পুলিশ গিয়ে আহতদের উদ্ধার করেন। ওই সময় বাজার ব্যবসায়ীরা আতংকিত হয়ে পড়েন।

বড়মানিকা ১নং ওয়ার্ডের মোস্তাফিজুর রহমান জানান, নুরমিয়ারহাট বাজারে আ’লীগের ক্লাবে শুক্রবার বিকালে মোঃ ইউসুফ গংদের সাথে জমি নিয়ে শালীশ বিচার চলছে।

শালীশরা রায় দিবে এমন অবস্থায় জমি দেনার কথা শুনে ইউসুফ এর ছেলে মোঃ রিংকু শালীশদের টেবিলের উপর থাপ্পড় দিয়ে বলেন, এখান থেকে একজন কেও যেতে দিব না বলেই শালীশদের উপস্থিতিতে পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে ভাড়াটিয়া মোঃ মামুন, ফরিদ, মনির, দুলাল, নুরু উদ্দিন, মনির, নিজাম ও লোকমান সহ ১০/১৫ জনের একটি গ্রæপ দেশীয় দা ছেনি, বগি দা নিয়ে আমাদের উপর এলোপাথারি হামলা করেন।

এতে আমরা ৬ জন গুরুতর জখম হই। ওদের হাত হতে রক্ষা পেতে পুলিশ কে অবহিত করলে থানা পুলিশ এসে আমাদের উদ্ধার করেন। আমরা বোরহানউদ্দিন হাসপাতালে এসে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা সেবা নেই।

ওরা আমাদের কাছ হতে দুইটি চেইন ও নগদ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় আমরা উপযুক্ত বিচার দাবী করছি।

স্থানীয়রা জানান, জমি নিয়ে বিরোধ হচ্ছে রিংকু আর মোস্তাফিজদের সাথে। কিন্তু মামুন, ফরিদ, মনির, কাঞ্চন, মো. নিজাম ও লোকমান কেনো অস্ত্র নিয়ে মোস্তাফিজদের উপর হামলা করলো।

এরা কি ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী হিসাবে কাজ করেন। ওরা এখন নুরমিয়ারহাটে কিশোর গ্যাং হিসাবে কাজ করছে।

টাকার বিনিময়ে যে কাউকে মারধর করছে ওরা। তাই এদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার দাবী জানান তারা। এব্যাপারে রিংকু গংদের সাথে আলাপকরার চেষ্টা করলে তাদের কাউকে খুঁজে পাওয়া যায় নি।

এব্যাপারে বড়মানিকা ১নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. মিলন মাতাব্বর জানান, আমি ঝগড়া থামাতে গিয়ে অনেক মার খেয়েছি।

এব্যাপারে বোরহানউদ্দিন থানা অফিসার ইন-চার্জ মো. মাজাহারুল আমিন জানান, ঘটনা শুনে তাৎক্ষনিক পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করেছি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নিবো।