• ২রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২৬শে রবিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

বাবুগঞ্জে ঘুষ চাওয়ার অপরাধে ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তাকে গণ-ধোলাই!

বিডিক্রাইম
প্রকাশিত অক্টোবর ১৮, ২০২১, ২০:২১ অপরাহ্ণ
বাবুগঞ্জে ঘুষ চাওয়ার অপরাধে ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তাকে গণ-ধোলাই!

বাবুগঞ্জ প্রতিনিধি: বরিশালের বাবুগঞ্জে ভূমি সংক্রান্ত কাজে অবৈধ অর্থ দাবী করার অভিযোগে দেহেরগতি ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা(তহসিলদার) হুমায়ুন কবির স্থানীয় জনতার হাতে হামলার শিকার হয়েছে।

তাছাড়া ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তার চেয়ারের আঘাতে স্থানীয় সেবা প্রত্যাশী সেলিম ফকির নামের একজন হাতে আঘাত পেয়ে চিকিৎসা নিয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

এসময় হালায় ভূমি কর্মকর্তার মাথা ফেটে রক্তাক্ত হয়। হামলার পর স্থানীয় জনতা তাকে অবরুদ্ধ করে রাখলে ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মশিউর রহমান পরিস্থিতি সামাল দিয়ে নিরাপদে সরিয়ে নেয় ভূমি কর্মকর্তা হুমায়ুন কবিরকে।

খবর পেয়ে উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মিজানুর রহমান পুলিশ নিয়ে তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য পাঠান বলে জানাগেছে। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার দুপরে দেহেরগতি ইউনিয়ন পরিষদের ২য় তলায় ।

দেহেরগতি ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা(তহসিলদার) হুমায়ুন কবির বলেন, রাকুদিয়া বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাইদুর রহমান ১২ অক্টোবর রাকুদিয়া মৌজার ক্রয়ক্রিত জমির দাখিলা গ্রহন করেন।

ঘটনার দিন বৃহস্পতিবার পুনারায় তিনি একই জমির দাখিলা গ্রহন করতে আসলে আমি তাকে বলি আগামী পহেলা বৈশাখ করে দিতে পারবো বলে। ত

খন তিনি আমাকে গালিগালিাজ করে চলে যায়। পরে স্থানীয়দের নিয়ে এসে হামলা করে আমার মাথা ফাটিয়ে দেয়।

রাকুদিয়া বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাইদুর রহমান বলেন, আমার বিদ্যালয়ের জমি সংক্রান্ত কাজে গেলে সময় ক্ষেপন করে খারাপ আচারন করে।

ভূমি সংক্রান্ত অনলাইনের কাজে নির্ধারিত ফি’র অধিক টাকা দাবি করে। অনৈতিকভাবে অর্থ দাবী ও খারাপ আচারনে উত্তেজিত সেবা প্রত্যাশিদের সাথে হাতাহাতি হয় তহসিলদারের।

এসময় উভয় পক্ষের লোক আহত হয়। ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মশিউর রহমান বলেন, সেবাপ্রত্যাশিদের সাথে তহসিলদারের হাতাহাতির খবর পেয়ে তাকে নিরাপদে সরিয়ে নেই এবং উত্তেজিত পরিস্থিতি শান্ত করি।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. মিজানুর রহমান বলেন, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে আহত হুমায়ুন কবির কে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে। হামলার ঘটনায় উর্দ্ধতনদের সাথে কথা বলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।