• ১৯শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৬ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ৬ই রমজান, ১৪৪২ হিজরি

বরিশালে ৫৫ হাজার মিটার কারেন্ট জাল জব্দ

বিডিক্রাইম
প্রকাশিত এপ্রিল ৭, ২০২১, ২২:৪৫ অপরাহ্ণ
বরিশালে ৫৫ হাজার মিটার কারেন্ট জাল জব্দ

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ মুজিববর্ষে শপথ নিবো, জাটকা নয় ইলিশ খাবো” প্রতিপাদ্যের আলোকে, মৎস্য অধিদপ্তর ও প্রাণীসম্পদ মন্ত্রণালয় এর উদ্দেগে জাটক সংরক্ষণ সপ্তাহ ২০২১ই উজ্জাপন হওয়ায় ৪ এপ্রিল থেকে ১১ এপ্রিল পর্যন্ত দেশের ইলিশ অভয়ারণ্য নদী গুলোতে পৃথক দুটি অভিযানের ভিত্তিতে কন্টিজেন্ট কমান্ডার বিসিজি স্টেশন বরিশালের মো: সাহ জামাল,এমসিপিও(এক্স) ও বাংলাদেশ নৌবাহিনীর জাহাজ এলসিটি ৫০ জাটকা নিধন প্রতিরোধ অভিযানে এম এ মোতালেব ই এ ফোর এর নেতৃত্বে আজ (৭ এপ্রিল) বুধবার ভোর থেকে বরিশাল জেলার হিজলা, মেহেন্দীগঞ্জ ও বরিশাল সদর উপজেলার কালাবদর, গজারিয়া ও মেঘনা নদীতে অভিযান চালিয়ে ৫৫ হাজার মিটার কারেন্ট ও ৫’ হাজার মিটার চরবেরো জাল জব্দ করে ।

জেলা প্রশাসন বরিশালের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট জাবেদ হোসেন এর উপস্থিতে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর জাহাজ এলসিটি ৫০ জাটকা নিধন প্রতিরোধ অভিযানের ৫৫ হাজার মিটার জাল বিকাল ৪ টায় কীর্তনখোলা নদীর চরকাউয়া বালুর মাঠে জব্দকৃত জাল গুলো পুরে ধ্বংস করা হয়।

এ ছাড়া বাংলাদেশ কোষ্ট গার্ড দক্ষিণ জোন বিসিজি স্টেশন এর ৫ হাজার মিটার বরিশাল পোর্ট রোড রসুলপুর বালুর মাঠে জব্দকৃত জাল গুলো পুরে ধ্বংস করা করা হয় এসময় উপস্থিত ছিলেন বরিশাল ইলিশ মৎস্য কর্মকর্তা বিমল চন্দ্র দাস।

এ সময় বরিশাল সিনিয়র ইলিশ মৎস্য কর্মকর্তা বিমল চন্দ্র দাস বলেন,এ অভিযান অব‌্যাহত থাকবে,আরো জোরদার করা হবে বলেও জানান তিনি,ইলিশ আমাদের জাতীয় রুপালাী সম্পদ। তাই “ইলিশ” বড় হওয়ার সময়ে বরিশালে সদর সহ বিভিন্ন উপজেলার বিভিন্ন নদ- নদীতে মৎস্য অধিদপ্তর ও প্রাণীসম্পদ মন্ত্রনালয়ের সরকারী প্রজ্ঞাপোণ অনুযায়ী অভিযান পরিচালিত হচ্ছে।

যদিও জাটকা নিধন অভিযান সব সময় হলেও, ইলিশ সংরক্ষণ সপ্তাহ অভিযান চলতি ১০ এপ্রিল পর্যন্ত চলবে বলে তিনি জানান। জেলা প্রশাসন বরিশালের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট জাবেদ হোসেন বলেন, ৪ এপ্রিল থেকে ১০ এপ্রিল ২০২১ পর্যন্ত ৭ দিন সব ধরনের জাটকা ইলিশ রক্ষায় জাটকা ধরা থেকে বিরত থাকার জন্য অনুরোধ রইল। তবে জাটকা নিধন করলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আমাদের সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে ইলিশের সাথে সংশ্লিষ্ট দের সচেতন করতে, এই ৭ দিন বরিশাল জেলায় ইলিশ ধরা, বিক্রয়, সংরক্ষণ, মজুদ, পরিবহন করা থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে।