• ৯ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ২৬শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২৬শে রমজান, ১৪৪২ হিজরি

বরিশালে অপরাধ দমন ও নিয়ন্ত্রন করতে বিএমপি’র সিসি ক্যামেরা স্থাপন

বিডিক্রাইম
প্রকাশিত এপ্রিল ১৮, ২০২১, ১৪:৩৬ অপরাহ্ণ
বরিশালে অপরাধ দমন ও নিয়ন্ত্রন করতে বিএমপি’র সিসি ক্যামেরা স্থাপন

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বরিশাল (বিএমপি) মেট্রোপলিটন এলাকার চারটি থানার আওতাধীন এলাকার অপরাধ দমন, অপরাধ সহায়ক সহ বিভিন্ন নগরময় জুড়ে অপরাধীদের চিহ্নিত করার পাশাপাশি মিছিল-মিটিং সভা সমাবেশের মাধ্যমে অরজগতা সৃষ্টিকারীদের সনাক্ত করার লক্ষে নতুন করে বরিশাল নগরী সহ চার থানায় এলাকায় দুই শতাধিক সিসি ক্যামেরার আওতায় আনার লক্ষে নগরীর গুরুত্বপূর্ণ সড়কের পাশাপাশি বিভিন্ন এলাকায় স্থাপনের কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে।

 

আজ রোববার (১৮ই) এপ্রিল, নগরীর প্রাণকেন্দ্র সদররোড,গ্রিজ্জামহল্লা, চকবাজার সহ বিভিন্ন এলাকায় নতুন করে গুরুত্বপূর্ণ স্থাপন এলাকায় এই নতুন সিসি ক্যামেরাগুলো বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের পক্ষ থেকে স্থাপন করার কার্যক্রম শুরু করেছে।

 

এব্যাপারে মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোঃ শাহাবুদ্দিন খান বলেন, আধুনিক বিশ্বে আজকাল অনেক ঘটনাই এই সিসি ক্যামেরা দ্বারা নিয়ন্ত্রন করা হচ্ছে।

 

এই ক্যামেরাগুলো স্তাপন করার কাজ সম্পূন করা হলে নগরীর ভিতর অপরাধ, দমন অপরাধ নিয়ন্ত্রন করার সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।

 

একই সাথে ক্যামেরার মনিটরিংয়ের মাধ্যমে বিভিন্ন চিহ্নিত অপরাধীদের সনাক্ত করা ও যেকোন অপরাধকারীদের চিহ্নিত করতে সিসি ক্যামেরা আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর কাজে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।

 

একই সাখে প্রায় সময় দেখা যায় নগরীতে মিছিল-মিটিং ও সভা সমাবেশের নামে বিশৃঙ্খলাকারী অরজগতা সৃষ্টি করা ব্যাক্তিদেরকে সহজেই চিহ্নিত করতে সুবিদা হবে।

 

অন্যদিকে এই সিসি ক্যামেরা (বিএমপি) আওতাধীন এলাকায় স্থাপন কাজ শেষ হলে অনেক অপরাধীদের খিতর আতংক কাজ করবে যারা বুজে যাবে সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে প্রশাসনের সদস্যরা তাদের সহজেই খুজে বের করে ফেলবে সেক্ষেত্রে তাদের মনের ভিতর অনেকটাই দূর্বলতা কাজ করবে।

 

যার ফলে ধিরে ধিরে অনেক অপরাধই কমে আসবে। অপরাধীরা বুজে যাবে সহজেই অপরাধ করে পাড় পাওয়া যাবে না।

 

উল্লেখ্য ইতি পূর্বে বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে বেশ কয়েক লক্ষ টাকা ব্যায় করে সাবেক মেয়র আহসান হাবীব কামালের সময় নগরীতে বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ন স্তানে সিসি ক্যামেরা স্থাপন করে ছিল।

 

সেসময় সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হলেও তা সঠিকভাবে মনিটরিং না করার এক প্রর্যায়ে সেই সব ক্যামেরাগুলো সড়কপথে থেকেও অকার্যকর হয়ে পড়ে।

 

ফলে কর্পোরেশনের কয়েক লক্ষ টাকা ব্যায় হলেও নগরবাসীর জন্য কোন সহায়ক ভূমিকা পালন করতে পারেনি সিসি ক্যামেরাগুলো।