• ৭ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ২২শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ২২শে রজব, ১৪৪২ হিজরি

শিরোনাম
বরিশালে টপটেন বিপনি-বিতানে ক্রেতা/বিক্রেতা সংর্ঘষ আহত ১০ আটক ৫ উজিরপুর মডেল থানার উদ্যোগে ৭ মার্চ উপলক্ষে আলোচনা সভা ও আনন্দ আয়োজন অনুষ্ঠিত ৭ মার্চে জাতির জনকের ভাস্কর্যে মতবাদের শ্রদ্ধাঞ্জলী বরিশাল সদর নৌ থানা পুলিশের ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ পালন বরগুনায় অবৈধ টমটম কেড়ে নিলো স্কুলশিক্ষকের প্রাণ বরিশালে ইউপি চেয়ারম্যানকে টাকা দিয়েও ঘর পাননি ভূমিহীনরা ঐতিহাসিক ৭ ই মার্চ বঙ্গবন্ধুর ডাকে বাংলাদেশ-বানারীপাড়া ছাত্রলীগ নলছিটি থানায় 'আনন্দ উদযাপন' বরিশালে তারেক রহমানের কারাবন্ধি দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা বরিশালে সরকারি হাসপাতালের ওষুধ পাচার ছবি তোলায় অবরুদ্ধ সাংবাদিক

ববি শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনায় দুই পরিবহন শ্রমিক গ্রেপ্তার

বিডিক্রাইম
প্রকাশিত ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২১, ১৩:০১ অপরাহ্ণ
ববি শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনায় দুই পরিবহন শ্রমিক গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (ববি) শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনায় দুই পরিবহন শ্রমিককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

 

 

শুক্রবার (২০ ফেব্রয়ারি) দিবাগত রাত দেড়টার দিকে নগরীর রূপাতলী বাসস্ট্যান্ড থেকে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়।

 

 

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, এমকে পরিবহনের সুপারভাইজার আবুল বাশার রনি (২৫) ও সাউথ বেঙ্গল পরিবহনের হেলপার মো. ফিরোজ (২৪)। তারা দু’জনই নগরীর রূপাতলী বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন হাউজিং এলাকার বাসিন্দা।

 

 

কোতয়ালি থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি নুরুল ইসলাম) জানান, মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রয়ারি) মধ্যরাতে রূপাতলী হাউজিং এলাকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের কয়েকটি মেসে হামলা চালানো হয়।

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রয়ারি) বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) মো. মুহসিন উদ্দিন বাদী হয়ে কোতয়ালি থানায় মামলা করেন।

মামলা দায়েরের পর আসামিদের শনাক্ত ও গ্রেপ্তারে পুলিশের একাধিক দল কাজ শুরু করে। তবে গ্রেপ্তারের হাত থেকে রক্ষা পেতে আত্মগোপন করেন হামলাকারীরা।

এ কারনে তাদের গ্রেপ্তারে সক্ষম হচ্ছিল না পুলিশ। শুক্রবার রাত দেড়টার দিকে তাদের দুই জনকে রূপাতলী বাসস্ট্যান্ড থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

 

 

ওসি নুরুল ইসলাম আরও বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তারকৃত আবুল বাশার রনি ও মো. ফিরোজ শিক্ষার্থীদের ওপর হামলায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছেন।

গ্রেপ্তারকৃত ওই দুই জন ছাড়াও হামলার ঘটনায় আরও বেশ কয়েকজন পরিবহন শ্রমিক জড়িত রয়েছেন। তাদেরকে গ্রেপ্তারের চেস্টা অব্যাহত রয়েছে এবং তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।