• ১৭ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৩রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ৩রা জমাদিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি

নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ আব্দুল্লাহ সাদীদের বদলীতে বিষাদের সুর বানারীপাড়ায়

বিডিক্রাইম ডেস্ক
প্রকাশিত নভেম্বর ২৪, ২০২০, ২১:১০ অপরাহ্ণ
নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ আব্দুল্লাহ সাদীদের বদলীতে বিষাদের সুর বানারীপাড়ায়

মো. সুজন মোল্লা,বানারীপাড়া প্রতিনিধি ::

বরিশালের বানারীপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ আব্দুল্লাহ সাদীদের আকস্মিক বদলীর খবরে অনেকটা বিষাদের সুর পরিলক্ষিত হয়েছে এখানকার সাধারণ মানুষের অবয়বে। উপজেলার অন্য কর্মকর্তারা ছিলেন ‘অশ্রুসিক্ত। বৃহস্পতিবার তিনি বানারীপাড়া ছেড়ে তার নতুন কর্মস্থল পটুয়াখালীর দুমকি উপজেলায় যোগদান করবেন বলে জানা গেছে। তার অন্যত্র বদলী হয়ে চলে যাওয়াকে বানারীপাড়াবাসীর হৃদয়ে রক্ত ক্ষরণের মতো বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

 

তার বদলীর আদেশ বাতিল করে তাকে বানারীপাড়ায় বহাল রাখার দাবিও জানিয়েছেন অনেকে। অসচ্ছ্বল গৃহহীন বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের জন্য কয়েক লাখ টাকা ব্যয়ে পাকা ঘর নির্মাণ করে দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এ ঘোষণার পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ আব্দুল্লাহ সাদীদ পৌর শহর সহ উপজেলার ৮ ইউনিয়নের প্রত্যন্ত জনপদে ঘুরে ঘুরে প্রকৃত অসচ্ছ্বল মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের তালিকা তৈরী করেছেন। এছাড়া গৃহ ও ভূমহীন পরিবারের সদস্যদের গৃহ ও ভূমি দেওয়া,শীতকে উপেক্ষা করে বাড়ি বাড়ি ঘুরে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ সহ নানা ভাবে তিনি অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন।

 

প্রলয়ংকরী ঘুর্ণিঝড় ‘ফনি’,‘বুলবুল’ ও ‘আম্ফান’ মোকাবেলায় তিনি এলাকাবাসীকে সচেতন করতে নিজেই মাইকিং করতে নেমে পড়েছিলেন গ্রামের রাস্তায়। পাশাপাশি সেই দূর্যোগময় রাতে তার নিজ গাড়িতে করে খাদ্য সামগ্রী নিয়ে কয়েকটি সাইক্লোন শেল্টারে আশ্রয় নেয়া মানুষের কাছে ছুঁটে গিয়েছিলেন। এসব কারনে তিনি একজন প্রকৃত ‘মানবদরদী’ কর্মকর্তা হিসেবে এলাকাবাসীর ‘হৃদয়ে ছুঁতে পেরেছেন। প্রাণঘাতি কোভিড-১৯ নভেল করোনাভাইরাস শুরুর পরে নিজ কার্যালয়ে ‘ঘরবসতি’ গড়ে তুলেছিলেন। তিনি স্থানীয় সংসদ সদস্য মো. শাহে আলম ও উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব গোলাম ফারুকের সাথে থেকে কর্মহীন হয়ে পড়া হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কাজে সহযোগীতা করেছেন।

 

এছাড়াও তিনি করোনার সংক্রমন থেকে এলাকাবাসীকে রক্ষা করতে নানা ভাবে সচেতনতামূলক দিক নির্দেশনা দিয়েছেন।