• ৮ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ২৩শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ২৩শে রজব, ১৪৪২ হিজরি

নলছিটিতে ইউনিয়ন বিএনপির আহ্বায়ক কমিটি প্রত্যাখ্যান

বিডিক্রাইম
প্রকাশিত ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২১, ১৪:০০ অপরাহ্ণ
নলছিটিতে ইউনিয়ন বিএনপির আহ্বায়ক কমিটি প্রত্যাখ্যান

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ ঝালকাঠির নলছিটির কুলকাঠি ইউনিয়ন বিএনপির আহ্বায়ক কমিটি প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে। উপজেলা কমিটির অনুমোদন দেওয়া ওই কমিটিকে সোমবার বিকেলে সংবাদ সম্মেলন করে প্রত্যাখ্যানের ঘোষণা দেন ইউনিয়ন বিএনপির নেতাকর্মীরা।

একই সময় তারা উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক মো. আনিচুর রহমান হেলাল খান ও ১ নম্বর যুগ্ন আহ্বায়ক মো. সেলিম গাজীর কঠোর সমালোচনা করে তাদেরকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেন।

কুলকাঠি ইউনিয়ন বিএনপির কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত সাংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি মো. আনোয়ার হক ছালাম বলেন, উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক ও যুগ্ম আহ্বায়ক পূর্বের কমিটি না ভেঙে এবং দলীয় গঠনতন্ত্র লঙ্ঘন করে দলের নিষ্ক্রিয় কয়েকজন নেতাকর্মীকে দিয়ে ১১ সদস্য বিশিষ্ট নতুন একটি আহ্বায়ক কমিটি গঠন করেছেন।

কমিটি গঠনে বিগত আন্দোলন-সংগ্রামে ত্যাগী এবং হামলা-মামলার শিকার নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন করা হয়নি। উপজেলা কমিটি কুলকাঠি ইউনিয়নে একটি পকেট কমিটির ঘোষণা দিয়েছেন।

আমরা এই সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে উপজেলা অনুমোদিত কমিটি প্রত্যাখ্যান করলাম। একই সঙ্গে উপজেলা কমিটির ওই দুই নেতাকে এ ইউনিয়নে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করছি।

সংবাদ সম্মেলনে কুলকাঠি ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. সাইদুর রহমান সেলিম, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান (লাভলু), ইউনিয়ন যুবদলের সভাপতি আ. মজিদ তালুকদার,

সাধারণ সম্পাদক মো. মায়েল আহম্মেদ, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান নান্নু, ইউনিয়ন শ্রমিক দলের সাবেক সভাপতি মো. কামাল মল্লিক ও ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক মো. মন্টু ঢালী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এ ব্যাপারে নলছিটি উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক মো. আনিচুর রহমান হেলাল খান বলেন, ‘সাংগঠনিক নিয়ম মেনেই কুলকাঠি ইউনিয়ন বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির অনুমোদন দেয়া হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে তারা যেসব অভিযোগ করেছেন, তা সবই মনগড়া ও ভিত্তিহীন।