• ৪ঠা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৯শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ১৯শে রজব, ১৪৪২ হিজরি

দারাজ এবং আমালের যৌথ উদ্যোগে কম্বল বিতরণ

বিডিক্রাইম
প্রকাশিত জানুয়ারি ২৭, ২০২১, ১৪:৫৯ অপরাহ্ণ
দারাজ এবং আমালের যৌথ উদ্যোগে কম্বল বিতরণ

পটুয়াখালী প্রতিনিধি ॥ পটুয়াখালীতে আমার দারাজ ও আমাল ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে প্রান্তিক জনজনগোষ্ঠীর মধ্যে কম্বল বিতরন করা হয়েছে।

২৭ জানুয়ারী অন্যান্য জেলার সাথে একযোগে অত্র ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে কম্বল বিতরন করা হয়। উল্লেখ্য, আমার দারাজ একটি সামাজিক উদ্যোগ।

আমার দারাজের মূল লক্ষ্য বাংলাদেশের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে কাজ করা। আমাল ফাউন্ডেশন বিগত পাঁচ বছর ধরে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে কাজ করে আসছে।

 

দারাজের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ রুবাইয়াত তাবাচ্ছুম জানিয়েছেন, “আমার দারাজের” অন্যতম প্রজেক্টের মধ্যে আলোক এবং আভা অন্যতম।

আভা প্রজেক্টের মাধ্যমে সারাবছরব্যাপী মানুষের কল্যাণে বিভিন্ন সামাজিক কার্যক্রম পরিচালনা করে। আভা প্রজেক্টের অংশ হিসেবে আমাল ফাউন্ডেশনের সহায়তায় “একটু উষ্ণতা” স্লোগানকে সামনে নিয়ে উত্তরবঙ্গের চারটি জেলা (বগুড়া, সিরাজগঞ্জ, নাটোর) এবং দক্ষিনবঙ্গের একটি জেলা পটুয়াখালীতে গরীব ও অসহায় শীতার্থদের মুখে হাসি ফুটিয়ে তুলতে ১৩০৮টি কম্বল বিতরণ করেছে। এর মধ্যে পটুয়াখালীতে ১০০টি কম্বল বিতরণ করা হয়েছে।

 

পটুয়াখালী জেলার কম্বল বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পটুয়াখালী সদর থানার অফিসার ইনর্চাজ মোঃ আখতার মোর্শেদ।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দক্ষিন তুষখালী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মোঃ আনোয়ার হোসেন ও ইউপি সদস্য মোঃ বাবুল কাজী।

এছাড়াও আরও উপস্থিত ছিলেন, ইয়ুথ পাওয়ার পটুয়াখালীর সভাপতি কে.এম.জাহিদ হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল্লাহ মোঃ মাসুম, দারাজ বাংলাদেশের সিএসআর এন্ড সাস্টেইনাবল ডেভেলপমেন্টের বিভাগীয় প্রধান তানজিলা রহমান, আমাল ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা এবং ডিরেক্টর ইশরাত করিম এবং দারাজের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ রুবায়েত তাবাচ্ছুম।

পটুয়াখালী সদর থানার অফিসার্স ইনচার্জ আখতার মোর্শেদ তার বক্তব্যের মাধ্যমে অসহায় শীতার্থদের সহযোগীতায় সবাইকে এগিয়ে আসতে আহবান করেন। তিনি দারাজ বাংলাদেশ এবং আমাল ফাউন্ডেশনেকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং ভবিষ্যতে এমন আরও উদ্যোগকে স্বাগত জানান।