• ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২০শে সফর, ১৪৪৩ হিজরি

ঝালকাঠি ও ভোলায় কোরবানি করা গরুর গোশতে আল্লাহ’র নাম

বিডিক্রাইম
প্রকাশিত জুলাই ২২, ২০২১, ১৬:০২ অপরাহ্ণ
ঝালকাঠি ও ভোলায় কোরবানি করা গরুর গোশতে আল্লাহ’র নাম

বিডি ক্রাইম ডেস্ক, বরিশাল ॥ ভোলার দৌলতখানে পবিত্র ঈদু-উল আজহা উপলক্ষ্যে কোরবানি করা গরুর গোশতে আল্লাহর নাম লেখা দেখা গেছে। বুধবার পবিত্র ঈদের দিন সকালে উপজেলার চরখলিফা ইউনিয়নের ৬ ন ওয়ার্ডের দিদারউল্ল্যাহ গ্রামের মৃর্ধা বাড়িতে এমন দৃশ্য দেখা যায়। খবর পেয়ে আল্লাহর নাম সম্বলিত গোশত দেখার জন্য অনেকে ভিড় জমান।

জানা গেছে, পবিত্র ঈদু-উল-আজহা উপলক্ষ্যে একটি গরু কোরবানি করেন ওই গ্রামের আলাউদ্দিন মৃর্ধা ও তার ভাই জসিম মৃর্ধা। গরু জবাইয়ের পরে গোশত টুকরো করার সময় একটি রানের গোশতের টুকরায় আল্লাহর নাম সাদৃশ্য লেখা দেখতে পায় তারা।

পরে আলাউদ্দিন মৃর্ধার ছেলে তানভীর মৃর্ধা আল্লাহর নাম লেখা গোশতের টুকরো ছবি তুলে ফেসবুকে পোস্ট করেন। মুহূর্তেই সংবাদ চারদিকে ছড়িয়ে পড়লে গোশতে আল্লাহর নাম লেখা দেখতে ভিড় জমায় এলাকাবাসী।

এ ব্যাপারে তানভীর মৃর্ধা জানান, গরুর গোশত টুকরো করার সময় আল্লাহর নাম দেখা গেছে। পরে স্থানীয় মাদরাসার হুজুরদের কাছে গোশতের টুকরো রাখা হয়। দৌলতখান মার্কাস মসজিদের খতিব মাওলানা মাহাবুবুর রহমান বলেন, কোরবানি করা গোশতে আল্লাহর নাম লেখা, এটা আল্লাহতায়ালার কুদরত।

অপরদিকে ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার আলহাজ্ব লালমোন হামিদ মহিলা কলেজ সংলগ্ন মাস্টার পাড়া এলাকার কবির সিকদারের বাড়িতে পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে কোরবানি করা গরুর গোসতে আল্লাহ’র নাম লেখা দেখা গেছে।

 

বুধবার (২১জুলাই)পবিত্র ঈদের দিন বেলা তিনটায় সৌদি প্রবাসী কবির সিকদারের পুত্র বধু জান্নাতির বসত বাড়িতে এমন দৃশ্য দেখা যায়।

 

কোরবানির গোশতে আল্লাহ‘র নাম লেখা পাওয়া গেছে খবর শুনে অনেকে তা দেখার জন্য ঐ বাড়িতে ভিড় জমাচ্ছে।

 

সাকিল সিকদারের স্ত্রী জান্নাতি জানায়, তিনি পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে একটি গরু কোরবানী দেন,পরে গোসত রান্নায় করার জন্য গোশত ধৌত করতে গেলে গোসতের উভয় পার্শ্বে একটি গোশতের টুকরায় আল্লাহ’র নাম সাদৃশ্য লেখা দেখতে পায় এবং তিনি গোশতের টুকরাটি ফ্রীজে সংরক্ষন করেন।

 

“গোশতের টুকরায় আল্লাহ’র নাম লেখা কথা জানাজানি হলে , গোশতে আল্লাহর নাম লেখা গোশতের টুকরাটি দেখতে ভিড় জমায় এলাকাবাসী।

 

রাজাপুর সরকারি গার্লস স্কুলের শিক্ষক মাওঃ মিজানুর রহমান হাতের উপরে রেখে এ আল্লাহু লেখা গোশতের টুকটির ছবিটি ধারনকরা হয়েছে।তিনি বললেন সুবহানাল্লাহ, আল্লাহ আকবর।