• ২রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২৬শে রবিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

ঝালকাঠিতে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় এসএসসি পরীক্ষার্থীকে মারধর

বিডিক্রাইম
প্রকাশিত নভেম্বর ২৩, ২০২১, ২০:৫১ অপরাহ্ণ
ঝালকাঠিতে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় এসএসসি পরীক্ষার্থীকে মারধর

বিডি ক্রাইম ডেস্ক, বরিশাল: ঝালকাঠির কাঁঠালিয়ায় উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় সমাপ্তি রানী সিকদার নামের এক এসএসসি পরীক্ষার্থী মারধরের শিকার হয়েছে।

মঙ্গলবার উপজেলা সদরের কাঁঠালিয়া পাইলট গালর্স স্কুল অ্যান্ড কলেজ এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্র সংলগ্ন সড়কে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত হাসিবুল ইসলাম লিখন হাওলাদার নামের একজনকে আটক করা হয়েছে।

আহত সমাপ্তি উপজেলার দোগনা বলতলা গ্রামের বাদল সিকদারের মেয়ে। বলতলা মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে সে। তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে (আমুয়া) ভর্তি করা হয়েছে।

তার স্বামী সাগর দেবনাথ ও শাশুড়ি অর্চনা রানী দেবনাথও ওই বখাটের হামলার শিকার হন। আর অভিযুক্ত লিখন উপজেলার শৌলজালিয়া ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য হারুন অর রশীদ লাভলুর ছেলে।

সে কাঁঠালিয়া সরকারি পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয় থেকে পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। সমাপ্তি ও লিখনের পরীক্ষা কেন্দ্র একই।

জানা গেছে, মঙ্গলবার পৌরনীতি বিষয়ে পরীক্ষা দিয়ে কেন্দ্র থেকে বের হয় সমাপ্তি রানী। বাড়ি ফেরার পথে কাঁঠালিয়া মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের উত্তর পাশে পৌঁছালে লিখন ওই পরীক্ষার্থীকে স্বামী ও শ্বাশুড়ির সামনে তাকে মারধর করে। এ সময় সমাপ্তির স্বামী পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ উপজেলার সাগর দেবনাথ ও তার মা অর্চনা রানী প্রতিবাদ করলে লিখন তাদের ওপরও হামলা চালায়।

সাগর দেবনাথ জানান, এসএসসি পরীক্ষার শুরু থেকেই কেন্দ্রে যাওয়া-আসার পথে লিখন তার স্ত্রীকে উত্ত্যক্ত করে আসছে। বিষয়টি পুলিশকে জানালে পুলিশ হাসিবুলকে থানায় নিয়ে মুচলেকা রেখে ছেড়ে দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে আমার স্ত্রীর ওপরও সে হামলা করে।

হাসিবুল ইসলাম লিখনের বাবা সাবেক ইউপি সদস্য হারুন অর রশীদ লাভলু জানান, তার ছেলেও এসএসসি পরীক্ষার্থী। হলে বসে সমাপ্তির সঙ্গে তার ভুল বোঝাবুঝি হয়।

বিষয়টি কেন্দ্র সচিব কাঁঠালিয়া পাইলট গালর্স স্কুল অ্যান্ড কলেজের (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যক্ষ জলিলুর রহমান আকন মিমাংসা করে দেন। কেন্দ্রের বাহিরে হামলার সঙ্গে তার ছেলে জড়িত নয়।

কাঁঠালিয়া পাইলট গালর্স স্কুল অ্যান্ড কলেজের (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যক্ষ ও কেন্দ্র সচিব জলিলুর রহমান আকন জানান, বলতলা দুই পরীক্ষার্থীর মধ্যে কেন্দ্রে বসে কোন বিষয় নিয়ে ঝামেলা হয়। পরীক্ষার পর বিষয়টি মিমাংসা করে দেওয়া হয়েছে। এরপর কেন্দ্রের বাইরে কী হয়েছে আমার জানা নেই।

থানার ওসি মুরাদ আলী জানান, বখাটেপনা করার অপরাধে হাসিবুল ইসলাম লিখন নামের একজনকে আটক করা হয়েছে। তদন্ত করে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

ইউএনও সুফল চন্দ্র গোলদার জানান, হামলাকারীকে পুলিশ আটক করেছে। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।