• ২রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২৬শে রবিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

জেলেদের চাল নিয়ে কর্তার নয়-ছয় ! 

বিডিক্রাইম
প্রকাশিত অক্টোবর ১৮, ২০২১, ২০:০০ অপরাহ্ণ
জেলেদের চাল নিয়ে কর্তার নয়-ছয় ! 
স্বপন কুমার ঢালী, বেতাগী : মা ইলিশ সংরক্ষণে ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞার ১৫ দিন পার হলেও উপকূলীয় জনপদ বরগুনার বেতাগীতে এখনো আর্থিক সহায়তার  চাল পাচ্ছেন না এমন অভিযোগ জেলেদের।  ৩ হাজার ১৮০ জন জেলে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন।
 জানা গেছে, বেতাগী পৌরসভাসহ ৭ টি ইউনিয়নে ৩ হাজার ১৮০ জন জেলে রয়েছে। গত ৪ অক্টোবর থেকে সরকার ইলিশ মাছ আহরণ, সংরক্ষণ ও বিক্রয়ের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। এ উপজেলার জেলেরা দারদেনা ও বেসরকারি সংস্থা থেকে ঋণ নিয়ে জাল নিয়ে সমুদ্রে মাছ ধরে।
এ পরিবারগুলোর  কিস্তির টাকা পরিশোধ নিয়ে নিশ্চিদ্র রাত কাটছে। জেলা কমল দাস জানায়, আর্থিক সহায়তা হিসেবে ত্রান ও পুর্নবাসনের চাল দিলে একটু হলেও পরিবারের সদস্যদের নিয়ে জীবনযাপনে সহায়তা হতো।
উপজেলা মৎস্য সমিতির সভাপতি আব্দল রব সিকদার জানায়, জরুরি ভিত্তিতে আর্থিক সহায়তার চাল দেওয়া দরকার। ঝোপখালীর  জেলে মোশারেফ হোসেন জানায়, আমরা কর্মকর্তার কাছে দাবী করতে পারব।
এ ছাড়া আর কিছুই করতে পারবো না। ‘ তবে নাম না প্রকাশের শর্তে একাধিক জেলে জানান, মৎস্য কর্মকর্তার কিছু খামখেয়ালি ও অব্যবস্থাপনার কারণে  এখানকার জেলে সঠিক সময় বরাদ্দের চাল পাছে না।’
  উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. ওয়ালিউল্লাহ বলেন, জেলেদের চাল ইতোমধ্যে বরাদ্দের ছাড়করণের  প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে। এখন মৎস্য কর্মকর্তা কখন দিবে এটা তাঁর নিজস্ব বিষয়।’
 এ বিষয়ে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. কামাল হোসেন বলেন, অতি শিকগিরই জেলেদের চাল দেওয়া হবে।’