• ২৩শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৯ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১২ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

জমি দিলে ১ বছরের মধ্যে হারতা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র করতে সক্ষম হবো– পুলিশ সুপার

বিডিক্রাইম
প্রকাশিত মে ৯, ২০২১, ১৯:১০ অপরাহ্ণ
জমি দিলে ১ বছরের মধ্যে হারতা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র করতে সক্ষম হবো– পুলিশ সুপার

নাজমুল হক মুন্না ॥ বরিশাল জেলার উজিরপুর উপজেলার হারতা ইউনিয়নে হারতায় পুলিশ ক্যাম্পকে জনগণের দাবি তদন্ত কেন্দ্র করার জন্য আজ ৯ মে রবিবার দুপুরে ক্যাম্প পরিদর্শনে আসেন বরিশাল জেলা পুলিশের মাননীয় পুলিশ সুপার মোঃ মারুফ হোসেন, পিপিএম।

তার শুভাগমনের কথা শুনে তাৎক্ষণিক ভাবে শত শত স্থানীয় জনসাধারণ উপস্থিত হয়। এসময়ে উপস্থিত সকলকে নিয়ে বর্তমান আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সম্পর্কে মুক্ত আলোচনা মাধ্যমে মনোযোগ সহকারে সকলের কথা শুনেন ও নোট করেন পুলিশ সুপার মোঃ মারুফ হোসেন, পিপিএম।

এসময়ে তিনি বলেন, ” জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা সল্পোন্নত দেশ থেকে মধ্যমআয়ের দেশ হিসাবে রুপান্তর হয়েছি, এবং ২০৪১ সাল নাগাত ইনশাআল্লাহ আমরা সমৃদ্ধশালী, ক্ষুধা মুক্ত, দারিদ্র্য মুক্ত, দুর্নিতী মুক্ত, শান্তিময় বাংলাদেশের দিকে অগ্রসর হচ্ছি, এক্ষেত্রে আমাদের সবাইকে সহযোগিতা করতে হবে।

আমাকে ক্যাম্পের জন্য জমি দিলে, আগামী ১ বছরের মধ্যে হারতা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র পুরোপুরি বাস্তবায়ন করতে সক্ষম হবো ইনশাআল্লাহ।” তিনি আরো বলেন, যদি আগামী ১মাসের মধ্যে জমি দিতে পরবেন এমন নিশ্চয়তা দিলে, জেলা পুলিশ আগামী ৭ দিনের মধ্যে প্রয়োজনীয় কাগজ পত্রাদি উপরস্থে পেশ করবে।

এছাড়াও তিনি রাস্তা ঘাটের বেহালগতি দেখে বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী টাকা দিচ্ছেন উন্নয়নের জন্য কিন্তু কাজ যাতে ভালো ভাবে হয় এগুলো জনপ্রতিনিধি ও জনসাধারণকে নিশ্চিত করার আহবান জানান, কেননা জেলা প্রশাসন ও জেলা পুলিশ এবিষয়ে সরকার প্রধানকে অবগত করে থাকি, প্রয়োজন হলে এবিষয়ে পুলিশ আপনাদের সহায়তা করবে। রাস্তা ঘাট ভালো না হলে পুলিশ আপনাদের কিভাবে দ্রুত সেবা দিবে? ঘটনা ঘটার পরে যে পুলিশ উপস্থিত হবে ওই দিন এখন আর নাই, তাছাড়া যাতায়তে ভগ্নদশা হলে ব্যবসায়িক উন্নতির ক্ষেত্রেও ক্ষতি।

তাই এবিষয়ে আমি ব্যক্তিগত ভাবে মাননীয় সাংসদের সঙ্গে কথা বলবো এদিকে দৃষ্টি দেয়ার জন্য। এছাড়াও তিনি মাদক সন্ত্রাস চাঁদাবাজীসহ নানাবিধ খারাপ কর্মকান্ড জড়িতদের নির্মূল করতে পুলিশের কড়াকড়ি অভিযান চলমান থাকবে বলে নিশ্চিত করেন। পরিশেষে পবিত্র মাহে রমজানের মধ্যে কষ্ট করে উপস্থিত হওয়ার জন্য জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে সকলকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান।

সেসময়ে উপস্থিত ছিলেন, সহকারী পুলিশ সুপার (উজিরপুর- বানারীপাড়া সার্কেল) আবু জাফর মোহাম্মদ রহমতুল্লাহ, উজিরপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ জিয়াউল আহসান, হারতা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সাবেক চেয়ারম্যান সুনীল কুমার বিশ্বাস, বর্তমান চেয়ারম্যান ডাঃ হরেন রায়, আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক অমল মল্লিক, এস আই মাহতাব, ইউপি সদস্য ন কৃষ্ণ বাড়ৈ’সহ প্রমূখ।