গলাচিপায় মৌসুমী ফলে সয়লাব বাজার - বিডি ক্রাইম ২৪

গলাচিপায় মৌসুমী ফলে সয়লাব বাজার

প্রকাশিত: ১২:৩৪ অপরাহ্ণ, জুন ২৯, ২০২০

গলাচিপায় মৌসুমী ফলে সয়লাব বাজার

গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধিঃ

পটুয়াখালীর গলাচিপা পৌর শহরে বাজার ভরে গেছে মৌসুমি ফলে। করোনাভাইরাসের কারণে কেনাকাটা কম হলেও সয়লাব ফলের বাজার। গত বছরের তুলনায় বেচা বিক্রি অর্ধেকে নেমে এসেছে এমনটিই জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। পৌরসভার পাইকারি আড়ৎ থেকে ফুটপাত ও অলিতে-গলিতে ফলের সমারোহ।

 

তবে সংক্রমণের ভয়ে সরাসরি বাজারে গিয়ে অনেকে ফল কেনা ঝুঁকিপূর্ণ মনে করছেন। লঞ্চঘাট রোড, থানা রোড, খেয়াঘাট রোড বাজার, সদর রোড, ফল বাজার, পূর্ব বাজার সহ বেশ কয়েকটি এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, অন্যান্য বছরের মত বেচাকেনায় তেমন ভিড় নেই ফলের দোকানগুলোতে। করোনাভাইরাসের কারণে ক্রেতা কমে গেছে বলে ব্যবসায়ীরা জানান।

 

ফলের বাজারে ক্রেতা কম হলেও দাম ছাড়ছেন না বিক্রেতারা। গলাচিপা ওয়াপদার উপরে ফলের পাইকারি আড়তে কিছুটা কম দামে কিনতে পাওয়া যায়। কিন্তু খুচরা বাজারে দাম অনেকটা বেশি বলে জানান ক্রেতারা। জানা গেছে, খুচরা বাজারে হাড়ি ভাঙ্গা, রুপালী আম বিক্রি হচ্ছে ১০০-১২০ টাকা কেজি দরে, ল্যাংড়া,

 

গোপালভাড়, হিম সাগর বিক্রি হচ্ছে ৫০-৬০ টাকা। অন্যান্য জাতের আম আরও কমদামে বিক্রি হচ্ছে বলে জানা যায়। আনারস মাঝারি (হালি প্রতি) ১০০-১২০ টাকা, জাম কেজি প্রতি ১৫০-২০০ টাকা ও কাঁঠাল মাঝারি প্রতি পিছ ১০০-২০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। গলাচিপার ওয়াপদার উপরে ফল ব্যবসায়ী কোটিপতি রাসেল জানান, এ বছর করোনার কারণে মানুষের আয় ইনকাম কম হওয়ায়, কোন রকম খেয়ে পড়ে আছি। আবার করোনার ভাইরাসের কারনে ফল বিক্রিতে তার প্রভাব পড়েছে। শুভ দাস বলেন, এ বছর করোনায় নিম্নবিত্ত ও মধ্যবিত্ত মানুষের হাতে টাকা না থাকায় ব্যবসায় বড় ধরনের মন্দা ভাব দেখা দিয়েছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ