• ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ , ১০ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

কারেন্ট জাল দিয়ে মাছ ধরায় তিন জেলের জরিমানা

বিডিক্রাইম
প্রকাশিত ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২৪, ১২:৪৫ অপরাহ্ণ
কারেন্ট জাল দিয়ে মাছ ধরায় তিন জেলের জরিমানা

বিডি ক্রাইম ডেস্ক, বরিশাল॥ পিরোজপুরে অবৈধ কারেন্ট জাল দিয়ে মাছ ধরায় তিনজন জেলেকে আটক করে ১২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এ সময় তিন হাজার মিটার জাল জব্দ করা হয়েছে।

রোববার (১১ ফেব্রুয়ারি) জেলার নাজিরপুরে ও কাউখালীতে মৎস্য অফিস ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের উদ্যোগে ওই জাল আটক ও অর্থদণ্ড করা হয়। এ সময় জেলেদের কাছ থেকে তিন হাজার মিটার কারেন্ট জাল জব্দ করা হয়েছে। যার আনুমানিক মূল্য প্রায় ৬ লাখ টাকা।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, ইলিশ সম্পদ উন্নয়ন ও ব্যবস্থাপনা প্রকল্পের আওতায় বিশেষ কম্বিং অপারেশনের অংশ হিসেবে রোববার সকাল ৯টার দিকে কাউখালী উপজেলা প্রশাসন ও মৎস্য অধিদপ্তর চিরাপাড়া নদীতে অভিযান পরিচালনা করেন। এসময় তিন হাজার মিটার অবৈধ কারেন্ট জালসহ চিরাপাড়া গ্রামের জের আলীর ছেলে সজিব (১৮), বড় বিড়ালজুরি গ্রামের ইদ্রিস খন্দকারের ছেলে সাইফুল ইসলাম (৪৭) ও সোনাকুর গ্রামের খলিল শেখের ছেলে পারভেজ শেখ (২০) নামের তিন জেলেকে আটক করা হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অবৈধ জাল দিয়ে মাছ ধরার অপরাধে মৎস্য সুরক্ষা ও সংরক্ষণ আইনে এক জেলেকে দুই হাজার টাকা ও দুই জেলেকে পাঁচ হাজার টাকা করে মোট ১২ হাজার টাকা জরিমানা করেন। আর পরে জব্দকৃত জাল জনসম্মুখে আগুনে পুড়িয়ে বিনষ্ট করা হয়। এসময় নৌ পুলিশের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

কাউখালীর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা হাফিজুর রহমান বলেন, নদীতে মাছ শিকারে কারেন্ট জাল ব্যবহার সম্পূর্ণ অবৈধ। এ জালের বিরুদ্ধে মৎস্য অফিসের উদ্যোগে প্রশাসনের সহায়তায় ওই অভিযান পরিচালনা করা হয়।

এ ছাড়া নাজিরপুর সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা গৌতম মন্ডল বলেন, উপজেলার কালিগঙ্গা ও বলেশ্বর নদীতে অভিযান চালিয়ে প্রায় ২০ হাজার মিটার অবৈধ কারেন্ট বাঁধা জাল ও চরপাঠা জাল আটক করা হয়। আটককৃত ওই সব জালের মূল্য প্রায় আড়াই লাখ টাকা। ভ্রাম্যমাণ আদালত ও প্রশাসনের সহায়তায় ওই সব জাল আটক করা হয়। তবে এ সময় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।