• ২৩শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৯ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১২ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

কলাপাড়ায় আনসার ব্যাটালিয়ান সদস্যদের সঙ্গে স্থানীয়দের ধাওয়া পাল্টাধাওয়া

বিডিক্রাইম
প্রকাশিত মে ৭, ২০২১, ২১:৪০ অপরাহ্ণ
কলাপাড়ায় আনসার ব্যাটালিয়ান সদস্যদের সঙ্গে স্থানীয়দের ধাওয়া পাল্টাধাওয়া

তানজিল জামান জয়, কলাপাড়া॥ কলাপাড়া পৌরশহরের নাচনাপাড়া মহল্লায় আনসার ব্যাটালিয়ান ক্যাম্পের সামনের বাসীন্দাদের সঙ্গে আনসার সদস্যদের ধাওয়া পাল্টাধাওয়া ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটেছে।

আনসার ব্যাটালিয়ান সদস্যদের ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও লাঠিপেটায় নারীসহ নয় জন আহত হয়েছে। এর মধ্যে নুরআলম (৪০) ও তানিয়াকে (২৫) কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্র্তি করা হয়েছে।

শুক্রবার জুমার নামাজের পরে এ ঘটনা ঘটে। আনসার ব্যাটালিয়ান ক্যাম্পের সামনের বাসীন্দারা স্থানীয় মসজিদের জন্য বনের দুইটি গাছ কাটছিল, একে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটে। প্রায় আধাঘন্টা দুপক্ষের মধ্যে ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। পরে কলাপাড়া থানা পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। তিন আনসার সদস্য আহতের দাবি করলেও কেউ নাম জানায়নি।

স্থানীয়দের অভিযোগ, আনছার ক্যাম্প বাউন্ডারির মসজিদটি তাঁরা নির্মাণ করেন ১৯৮৯সালে। করোনা পরিস্থিতির কারনে ওই মসজিদে বাইরের লোকজনকে নামাজ পড়তে নিষেধ করা হয়। যার প্রেক্ষিতে বেড়িবাঁধের বাইরের বাসীন্দারা একটি পাঞ্জেগানা মসজিদ তৈরি করেন।

সেখানকার মসজিদ ঘরের সমস্যার জন্য বনবিভাগের দুইটি গাছ কাটছিল। ওই গাছ কাটতে বাধা দেন আনসার সদস্যরা এবং আবুল কালাম নামের এক ব্যক্তিকে ধরে নিয়ে মারধর করা হয়। এখবর ছড়িয়ে পড়লে উত্তেজিত মানুষের আনসার সদস্যদের সঙ্গে ধাওয়া পাল্টাধাওয়ায় লিপ্ত হয় এবং ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। দ্রুত পুলিশ গিয়ে আহতদের হাসপাতালে পাঠায়। এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

কলাপাড়া থানার ওসি খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, এখন পরিস্থিতি সম্পুর্ণ শান্ত রয়েছে। ঘটনাস্থলে কলাপাড়ার ইউএনও আবু হাসনাত মোহাম্মদ শহিদুল হকসহ পুলিশের উর্ধতন কর্তৃপক্ষ উপস্থিত রয়েছেন। আহতরা আনসার সদস্যদের দায়ী করে জানান, শুধু শুধু তারা একজনকে ধরে নিয়ে মারধর করেছে।

একজনকে মসজিদ থেকে বের করে দেয়ারও অভিযোগ করেন। এরপরে আনসার সদস্যরা সবাই একযোগে সাধারণ মানুষের ওপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করেছে।